গণেশ- শিল্প ও বিজ্ঞানের পৃষ্ঠপোষক দেবতা

by - February 09, 2020

দেবতা গণেশ

গণেশ- হিন্দু ধর্মে সর্বাধিক পূজিত দেবতাদের মধ্যে অন্যতম। সিদ্ধিদাতা হিসেবে পরিচিত গণেশ শিল্প এবং বিজ্ঞানের পৃষ্ঠপোষকও বটে। ভারত, শ্রীলংকা, এবং  নেপালে গণেশের মন্দির দেখা যায়। তবে, সব দেশের হিন্দু ধর্মাবলম্বীরাই গণেশ পূজা করে থাকেন। 
ছবিটি ফ্লিকার থেকে নেয়া। ব্যবহারের জন্য
কৃতজ্ঞতা প্রকাশের বাধ্যবাধকতা আছে। ছবিটি অ্যাট্রিবিউশন 2.0 সাধারণ (CC BY 2.0) লাইসেন্স এর আওতাভুক্ত

শব্দের উৎপত্তিঃ  সংস্কৃত 'গণ' শব্দের অর্থ গোষ্ঠী এবং 'ঈশ' শব্দের অর্থ 
ঈশ্বর। গণেশ শব্দটি গোষ্ঠীর ঈশ্বরকে নির্দেশ করে। তামিলভাষীরা গণেশকে পিল্লাই বলে ডাকেন। পিল্লাই অর্থ শিশু আবার, পিল্লাইয়ার শব্দটি বুঝায় মহান শিশুকে। এর অর্থ অতীতে হস্তীশাবক ছিল বলে অনেকে মনে করেন। 

শিবপুরাণ, স্কন্ধপুরাণ, ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ, পদ্মপুরাণ প্রভৃতি পুরাণে আলাদা আলাদা ঘটনার বর্ণনা পাওয়া যায়। সবগুলোই মাথাবিহীন একটি শিশুর কথা বলে যার মাথা পরবর্তীতে হাতির মাথার মত হয়েছে। 

গণেশ প্রার্থনামন্ত্র-
দেবেন্দ্রমৌলিমন্দারমকরন্দকণারুণাঃ।
বিঘ্নং হরন্তু হেরম্বচরণাম্বুজরেণবঃ।।

এই মন্ত্রে  বিঘ্নহরণের কথা বলা হয়েছে, তাই হিন্দুধর্মাবলম্বীরা বাধা বিঘ্ন দূর করার জন্য এই মন্ত্র পাঠ করে থাকেন। বাঙালি হিন্দুরা মনে করে বিষ্ণুর মত গণেশও শঙ্খচক্রগদাপদ্মধারী।

You May Also Like

0 comments